বিএসএফের গুলিতে ২ বাংলাদেশি গুরুতর আহত

নিউজটি লাইক-শেয়ার করুন

কুড়িগ্রাম সংবাদদাতা:কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার নারায়ণপুর সীমান্তে গরুপাচারের সময় ভারতীয় সীমান্ত রক্ষীবাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে দুই বাংলাদেশি যুবক আহত হয়েছেন। আহতরা বর্তমানে রংপুরে গোপনে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নারায়ণপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের মুন্সিপাড়া সীমান্তে আন্তর্জাতিক সীমানা পিলার ১০৪০’র সাব পিলার ১৬- এর কাছে তারা গুলিবিদ্ধ হন।

নারায়ণপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মহিমুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আহতরা হলেন নারায়ণপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের পূর্ব নারায়ণপুর ডাকডহর গ্রামের আব্দুল মোন্নাফের ছেলে হাছানুর আলী (১৮) এবং মোজাহার প্রামানিকের ছেলে শাহাদৎ হোসেন প্রামানিক (২৫)।

মহিমুল ইসলাম বলেন, “ঘন কুয়াশার সুযোগ নিয়ে সকালে একদল গরু পাচারকারী দল কাঁটাতারের ওপর দিয়ে গরু আনার চেষ্টা করে। এসময় ভারতের আসাম রাজ্যর ধুবড়ী জেলার শালমারা থানার কালাইবাড়ি ক্যাম্পের বিএসএফ সদস্যরা টের পেয়ে কয়েক রাউন্ড গুলি ছুঁড়লে হাছানুর এবং শাহাদৎ আহত হয়। পরে সঙ্গীরা তাদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য রংপুর বিভাগীয় শহরে নিয়ে যায়।”

নারায়ণপুরের চেয়ারম্যান মজিবর রহমান বলেন, “বিএসএফের গুলিতে আহত দুই যুবক এখন রংপুর শহরে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে তাদের পারিবারিক সূত্রে নিশ্চিত হয়েছি।”

কচাকাটা থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহবুব আলম জানান, নারায়ণপুর সীমান্তে মঙ্গলবার বিএসএফের গুলিতে দুই বাংলাদেশি যুবকের আহতের সংবাদ পেয়েছি। তারা এখন রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল চিকিৎসাধীন রয়েছে।

কুড়িগ্রামস্থ-২২ ব্যাটালিয়ান বিজিবি’র অধিনায়ক লেফটেনেন্ট কর্ণেল মোহাম্মদ জামাল হোসেন জানান, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিএসএফের ছোড়া রাবার বুলেটের আঘাতে দুই বাংলাদেশি আহত হবার খবরটি লোক মারফত শুনেছি। তবে ওই এলাকায় টহলরত বিজিবি সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে কাউকে পায়নি। বিএসএফ পক্ষ থেকেও আনুষ্ঠানিক ভাবে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *